Paper Cutting

হাইস্কুল কালীন শখঃ পেপার কাটিং

পেপার কাটিং টা যখন শখে পরিণত হয়, তখন শখ কি জিনিস সেটাই ভালমত বুঝি না। “My Hobby” প্যারাগ্রাফের কল্যানে এতটুকু বুঝতাম, শখ হচ্ছে আজাইরা কিছু করা এবং সেটার ধারনা স্ট্যাম্প, ডাক টিকিট বা মুদ্রা কালেকশন পর্যন্ত। শখ হিসাবে কি করা যায়, এসব আমি বুঝতাম ও না। আমি জানতাম ও না,  পেপার কাটিং বলে আমার একতা শখ আছে। এটাকে যে শখ বলা যায়, সেটা অনেক পরে বুঝেছি।

যাইহোক, তখন পিন্টারেষ্ট ছিল না। পিন্টারেষ্ট না থাকাটাই আসলে এই পেপার কাটিং শুরুর কারণ। (আন্দাজ করি)। আমি তখন থেকেই কিছুটা টেকনোলজি মাইন্ডের। কম্পিউটার মোটামোটি টিপতে জানতাম, সাইবার ক্যাফে তে বসে থাকতাম, কম্পিউটারের দোকানে যেয়ে যেয়ে বিভিন্য গ্যাজেট দেখলতাম। ভাল লাগতো।

তো পত্রিকায় যা দেখতাম, সেগুলো আসলে সংরক্ষনের কোন উপায় ছিল না। আর পেপার কাটিং করলে, সেটা পরে হাড়িয়ে যেত। তাই আমি পেপার কাট করে আঠা দিয়ে বই এর পাতায় লাগিয়ে রাখতাম। মূলত এটাই ছিল পেপার কাটিং।

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

পেপার কাটিং

যাই হোক, আমার দ্বিতীয় বই টার থেকে কিছু পৃষ্ঠা দিলাম। ১ম বই টা খুঁজে পাচ্ছি না 🙁 এই ছিল পৃথিবীর সবচাইতে সুখি মানুষ এর একটি অন্যতম শখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *