Featured Video Play Icon

কেমন ছিল শীতের সিলেট? জাফলং, লালাখাল আর চা বাগান

হ্যালো বন্ধুরা, আসসালামু আলাইকুম। আমি লাবিব ইত্তিহাদুল সবাইকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করতে যাচ্ছি আমার আজকের ডোকুমেন্টারী কাম ভিডিও ব্লগ আর আজকে আপনাদের নিয়ে যাব সিলেট।
সিলেট নিয়ে আমার অলরেডি একাধিক ভিডিও আছে জাফলং, সংগ্রামপুঞ্জি, রাতারগুল, বিছনাকান্দি ইত্যাদি প্লেস নিয়ে। তবে সব ভিডীওতেই লালাখাল আর জিরো পয়েন্ট চা বাগান খুব একটা দেখাতে পারিনি। যদিও এবারের ট্যুরে আমরা জাফলং, আগুন পাহাড় ও গিয়েছিলাম, তবে এবার ফোকাস থাকবে লালাখাল আর চা বাগান এর দিকে। আশাকরি সবার ভাল লাগবে।
আর আপনি যদি আমার চ্যেনেলে নতুন হয়ে থাকেন, তবে এক্ষুনি সাবস্ক্রাইব করে ফেলুন। আর কথা না বাড়িয়ে চলুন যাত্রা শুরু করি।

আমরা যাত্রা শুরু করেছিলাম সায়েদাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে রাত ১১ টায় আল মোবারাকা বাসে। যেহেতু ডিসেম্বরের শেষ এবং শীতকালীন যাত্রা, রাতে প্রচন্ড ঠান্ডা ছিল বাসে। বাসের টিকিট ছিল ৩৫০ টাকা জনপ্রতি। এই বাস আমাদেরকে নিয়ে যাবে সিলেট বাসস্ট্যান্ড পর্যন্ত।

এপর্যায়ে আমাদের অরিজিনায় জার্নি শুরু লেগুনায় চরে। গন্তব্য জাফলং। তবে জাফলং যাওয়ার পথে হাতের বাম দিকে কোন একটা রাস্তায় ঢুকলেই দেখা মিলবে আগুন পাহাড়ের। আগুন পাহাড়ের বৈশিষ্ট হচ্ছে, এই টিলার চারপাশের ফাটল দিয়ে বেরুচ্ছে প্রাকৃতিক জ্বালানী গ্যাস। এমনকি সামান্য গর্ত করে আগুন জ্বালালেই সেই গর্ত হয়ে যায় একটি চুলা! আপনারা যে সিএনজি বা লেগুনায় বা গাড়িতে চরে যাবেন, ড্রাইভারকে বললেই নিয়ে যাবে আগুন পাহাড়ে। লেগুনায় মাত্র ৫ মিনিটের কাচা রাস্তা।

সিলেট বাসস্ট্যান্ড থেকে জাফলং পৌছুতে আমাদের সময় লাগলো প্রায় আড়াই ঘন্টার মত। আর আপনারা যারা জাফলং এর শীতল জলরাশি দেখার জন্য অপেক্ষা করচ্ছেন, তাদেরকে এখানেই থামিয়ে দেই। কারণ এই জার্ণি টা ছিল শীতের জার্নি। আর শীতের জাফলং আর পাথুরে মরুভূমির মধ্যে খুব একটা পার্থক্য নাই আমার মতে। তাই যারা সামনের শীতে জাফলং যাওয়ার প্ল্যান করে বসে আছেন, তারা এই চিন্তাটা মাথা থেকে একেবারে ঝেরে ফেলে দিন। সেলেটের প্রায় সবগুলো আকর্ষনীয় প্লেস যেমন রাতারগুল, বিছানাকান্দি, সংগ্রামপুঞ্জি ঝর্ণা তাদের যৌবন ফিরে পায় বর্ষায়। তাই সিলেট ভ্রমণের আসল সময় হচ্ছে বর্ষাকাল। তবে শীতে যেতে চাইলে তো আমি আটকাতে পারব না, গেলে ভিডিওতে যেমন দেখচ্ছেন, তেমন একটা মুরুভূমি টাইপের জাফলং দেখার জন্য প্রস্তুতি নিয়ে রাখবেন।
তবুও আমরা জাফলং এ গিয়েছি। কেউ কেউ হাটু পানিতে নেমেছেন ও। তবে আমার মন টা আকুপাকু করচ্ছিল লালাখাল আর চা বাগান দেখার জন্য।

লালাখাল ঘাটে দুপুরের খাবার খেয়েই আমরা একটা নৌকা নিয়ে ভাসলাম লালাখালে। লালাখালের সৌন্দর্য্যের মূল রহস্য হচ্ছে এর চারপাশের লাল পাটি এবং নীলাভ সবুজ অথবা সবুজাভ নীল পানি। এই পানির রঙ কে আপনি নীল ও বলতে পারবেন না, সবুজ ও বলতে পারবেন না, মাঝামাঝি কিছু একটা। এই মানির সৌন্দর্য্য আপনাকে মুগ্ধ করবেই। সচ্ছ পানির দিকে তাকালে নিচের মাটি পর্যন্ত দেখা যায় খালি চোখেই।
তবে একটু সতর্ক থাকবেন। কেউ সৌন্দর্যে বিমোহিত হয়ে আমার মত পকেটে মোবাইল নিয়েই ঝাপিয়ে পরবেন না। যেটা আমি করেছিলাম এই ট্যুরের আগের ট্যুরে। ঝাপ দেয়ার আগে মনে হচ্ছিল, এই মুহূর্তে পানিতে ঝাপ না দিলে আমি মরে যাব।

এবার বলে দেই লালাখালের নৌকাভাড়ার ব্যাপারে। সাধারণত লালাখালের ইঞ্জিন নৌকার ভাড়া ঘন্টায় ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা। যার থেকে যেমন রাখা যায়। তাই বলে ভাববেন না প্রথমেই তারা ৮০০ টাকাই চাইবে। তারা দাম হাকবে ২৫০০ বা ৩০০০ টাকা। ভরকে যাবেন না। দামাদামি তে ভাল এক্সপার্ট এমন কাউকে দিয়ে দরদাম করান। এমন ভাবে কথা বলবেন যেন আপনি গতকালকেও ঘুরে গেছেন এখান থেকে।
আর হ্যা, আপনি যদি নৌকা থামিয়ে রেখে চা বাগান ঘুরতে যান, তখন ও কিন্তু টাইম কাউন্ট চলতে থাকবে। আপনি যদি ৩০ মিনিট নৌকায় ঘুরেন আর ১ ঘন্টা নৌকা ওয়েটিং এ রেখে চা বাগানে বেড়ান, তাহলে আপনাকে দেড় ঘন্টার ই টাকা দিতে হবে মাঝি কে।

আমরা লালাখালে ঘুরাঘুরির এক পর্যায়ে নৌকা ভিড়িয়ে ঘুরতে গেলাম চা বাগানে। আর চা বাগানের সৌন্ধর্যের ব্যাপারে তো নতুন করে কিচ্ছু বলার নেই। চারিদিকে সবুজ আর সবুজ। চোখে কেমন যেন একটা প্রশন্তি দেয় এই সবুজ রঙ। মন চায় যেন একটানা তাকিয়েই থাকি।
তো, চা বাগান ঘুরে এসে সেই লেগুনায় করে আমরা ফিরলাম সিলেট শহরে, রাতের খাবার খেয়েছি ৫ ভাই হোটেলে, ৫ ভাই হোটেল নিয়ে অলরেডি আমার একটা ভিডিও আছে। আর এবারের সিলেট ইভেন্ট ছিল ভবঘুরে ট্রাভেল গ্রুপের একটি সেমি কমার্শিয়াল ইভেন্ট। আমাদের সাথে জয়েন করতে বা ভ্রমণের ছবি গুলো দেখতে ফলো করতে পারেন ফেসবুক ও ইন্সটাগ্রামে। সব লিঙ্ক দেয়া আছে ভিডিও ডেসক্রিপশনে।
আর ভিডিও টি যদি ভাল লাগে, তাহলে আস্তে করে লাইক বাটন টায় একটা ক্লিক করে দিন। কমেন্ট করে জানান কেমন লাগলো অথবা কোন প্রশ্ন। আপনাদের লাইক কমেন্ট গুলোই আমাকে নতুন ভিডিও বানাতে প্রেরণা যোগায়।
আজকের মত ভিডিও আর বড় না করে এখানেই শেষ করচ্ছি। আবার আসব নতুন কোন প্লেস এর ভিডিও নিয়ে। সেই পর্যন্ত ভাল থাকবেন। আল্লাহ্‌ হাফেজ।

ভবঘুরে 🔻
http://facebook.com/groups/582375178503844/

Follow Me on Facebook 🔻
http://facebook.com/labib.ittihadul

Like My Page on Facebook 🔻
http://facebook.com/TheLabib

Follow Me on Instagram 🔻
http://instagram.com/Labib_ittihadul

Follow Me on Google Plus 🔻
https://plus.google.com/115866598188505294013

Follow Me on Twitter 🔻

Follow Me on LinkedIn 🔻
http://www.linkedin.com/in/labibittihadul

Visit My English Blog 🔻

Home

Visit My Bangla Blog 🔻

নীড়

৩৩৯০৯ টি সর্বমোট হিট ২৯ টি আজকের হিট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *