Featured Video Play Icon

রাতারগুল সোয়াম্প ফরেষ্ট ও বিছানাকান্দি ভ্রমণ

২ দিনের সিলেট ট্যুরের এটা ২য় দিনের ভিডিও ব্লগ। যাওয়া হয়েছিল রাতারগুল সোয়াম্প ফরেষ্ট ও বিছানাকান্দি ভ্রমণে। সিএনজি ভাড়া সারাদিন ১৯০০ + ১০০ বখশিশ। এর আগের দিন, অর্থাৎ সিলেট ট্যুর এর প্রথম দিন গিয়েছিলাম আগুন পাহার, জাফলং, লালাখাল, ঝর্ণা আর আশে পাশের আরো কিছু স্থান দেখতে।

রাতারগুল সোয়াম্প ফরেষ্টঃ আমার দেখা সিলেটের অন্যতম বিশেষ আকর্ষনীয় স্থান। ভেতরটা সুন্দরবনের মত। রাতারগুল গ্রামের পাশেই এই সোয়াম্প ফরেস্ট, তাই নাম হয়েছে রাতারগুল সোয়াম্প ফরেষ্ট। এখানে কিছু যায়গায় ঘন বড় গাছের কারণে আকাশা দেখা যায় না। গাছের গোড়া পানিতে ডুবন্ত। এমন স্থানে সবুজ পাতা ভেদ করে পানিতে সবুজাভ আলো পরে। দৃশ্যটা লিখে বর্ণনা করা মত না একেবারেই।
সতর্কতাঃ জোঁক আছে পানিতে। সুতরাং, পানিতে নামার ব্যাপারে সাবধান।

বিছানাকান্দিঃ সিলেটের অন্যতম আকর্ষণ। পতিমধ্যে পাংথুমাই ও লক্ষণছড়া। যদিও আমাদের সময়ের অভাবে সেখানে যাওয়া হয় নাই। শুধু বিছানাকান্দি যাওয়া হয়েছে। পাথরের উপর দিয়ে প্রবাহিত বরফ শীতল ঠান্ডা পানি আর পানির গর্জন। যে কাউকে পাগল করে দিবে বিছানাকান্দির সৌন্দর্য। গোয়াইনঘান এর পীরের বাজার থেকে ট্রলার ভাড়া করে যাওয়া যায়।
রিজার্ভ ট্রলার ভাড়া চায় ২০০০/২৫০০ টাকা করে কিন্তু আসল ভাড়া ১০০০ এর কম। আমাদের ৮০০ টাকা নিয়েছিল। প্রথমে মানতেই চাচ্ছিল না, পরে রাগ করে ফিরে আসব এমন সময় রাজি হয়েছে। এটা একটা সিন্ডিকেট। সিলিটের জাফলং, লালাখাল, রাতারগুল, বিছানাকান্দি সহ নৌকা ভাড়ার প্রতিটা ট্যুরিষ্ট স্পটে এমন সিন্ডিকেট রয়েছে। ভাড়া জানা থাকলেও ট্যুরিষ্টদের ভরকে দিতে পারে তাদের এই আকাশচুম্বী ভাড়া।

রাতারগুলে যে মাঝি বলেছে ৪০০ টাকা করে নিবে প্রতি নৌকা, তার নাম বিল্লাল। নাম্বারঃ 01790316735
যাওয়ার আগে বিল্লাল কে ফোন করে নিশ্চিত হয়ে গেলেই ভাল হয়।

১৬৩৩৫ টি সর্বমোট হিট ৭ টি আজকের হিট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *